আন্তর্জাতিক ডালশস্য বর্ষ ও এক ভারতীয় মহিলা বিজ্ঞানী

Filed in কিছু ইতিহাস … by on August 23, 2016 Comments
আন্তর্জাতিক ডালশস্য বর্ষ ও এক ভারতীয় মহিলা বিজ্ঞানী

বিখ্যাত ভারতীয় বিজ্ঞানীদের উপর লেখা বইগুলোতে মূলত সত্যেন্দ্রনাথ বসু, প্রফুল্লচন্দ্র রায়, বা সি ভি রামনের মত পুরুষ বিজ্ঞানীদের কথাই লেখা থাকে। মহিলা বিজ্ঞানীদের কথা এই সমস্ত বইগুলোতে লেখা হয় না বললেই চলে। আর লেখা হলেও তা হয় নিতান্তই দায়সারা ভাবে। অথচ সমাজ, পরিবার, এমনকি বৈজ্ঞানিক প্রতিষ্ঠানের সাথে রীতিমতো লড়াই করে এই সমস্ত মহিলা বিজ্ঞানীরা বহু গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে গেছেন, যার সুফল ভোগ করছে আজকের প্রজন্ম। তাদের এই প্রচেষ্টা ও বিজ্ঞানের প্রতি অনিঃশেষ ভালোবাসাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে আজকের এই লেখা। ধ্রুৱজ্যোতি চট্টোপাধ্যায় লিখছেন বিজ্ঞানী কমলা সোহনীর কথা।

পড়তে থাকুন... »

ডিপ্রেশন

ডিপ্রেশন

ডিপ্রেশন কথাটা আমরা আকছার ব্যবহার করে থাকি, কিন্তু সবসময় সঠিকভাবে প্রয়োগ করি কি? ড: তনয় মাইতি জানাচ্ছেন, আর কি কি মনের অসুখ দেখে ডিপ্রেশন বলে ভুল হতে পারে। কেন এরকম ভুল খুব সহজেই হতে পারে এবং তার থেকে সতর্ক থাকার উপায় কি, সেই পথও বাতলাচ্ছেন তিনি।

পড়তে থাকুন... »

পাঠকের দরবার ৪ – লাইগোর মত পরীক্ষা-নিরীক্ষা সাধারণ মানুষের জীবনে কী প্রভাব ফেলবে ?

Filed in পাঠকের দরবার by on August 8, 2016 Comments
পাঠকের দরবার ৪ – লাইগোর মত পরীক্ষা-নিরীক্ষা সাধারণ মানুষের জীবনে কী প্রভাব ফেলবে ?

লাইগো বা লার্জ হাড্রন কোলাইডারের মত পরীক্ষাগুলিতে হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ হয়, অথচ আপাতদৃষ্টিতে এই পরীক্ষাগুলির মাধ্যমে না কঠিন রোগ সারে না দারিদ্র্য ঘোচে। তাই স্বাভাবিকভাবেই অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে যে এত এত টাকা খরচ করে এই পরীক্ষাগুলো করার কি দরকার? এত টাকা দিয়ে কত না সামাজিক সমস্যার সমাধান হয়ে যেত, কত না নতুন চিকিৎসা পদ্ধতি আবিষ্কার হত! কিন্তু সত্যিই কি তাই? ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির পদার্থবিদ্যার অধ্যাপক রানা অধিকারী দিচ্ছেন এই প্রশ্নের উত্তর।

পড়তে থাকুন... »

কাইরালিটির ওপর আলোকপাত

কাইরালিটির ওপর আলোকপাত

আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে আমরা অনেকেই খেয়াল করেছি আয়নার এপারের ‘আমি’-র ডান হাত হয়ে গিয়েছে ওপারের ‘আমি’-র বামহাত, বাম গালের তিলটি চলে গিয়েছে প্রতিবিম্বের ডান গালে! এই ডান-বাম পালটে যাওয়ার ঘটনা নিয়ে গভীরভাবে ভাবতে হয় রসায়নবিদদের! কারণ, অনেকসময় দুটি ওষুধের অণু – যারা একে অপরের প্রতিবিম্ব মাত্র – তাদের কার্যকরিতা পালটে গিয়ে হতে পারে মারাত্মক ট্র্যাজেডি। এই ডানহাতি আর বাঁহাতি অণুদের সম্বন্ধে, বিশেষত তাদের কী করে আলাদা করে চেনা যায়, সেই কাহিনী লিখছে ‘বিজ্ঞান’ দলের দুই অর্ণব রুদ্র।

পড়তে থাকুন... »

স্মৃতির সূত্র

স্মৃতির সূত্র

আচ্ছা বলুন তো স্মৃতি বড় না বুদ্ধি বড়? প্রচলিত ধারণা থেকে আমরা অনেকেই হয়ত বুদ্ধিকে বেশি ভোট দেব। কিন্ত সত্যি কোন টা? অবাক লাগলেও আসলে দুটো একে অপরের সাথে জড়ানো! মস্তিষ্কের মধ্যে ঠাঁই নেওয়া মেধা আর স্মৃতিশক্তির কারণ খঁজে বার করতে বিজ্ঞানীরা ঘেঁটে ফেলেছেন বহু মাথা, আইন্সটাইন থেকে শুরু করে ওয়ার্লড মেমারি চ্যাম্পিয়ন্স, বাদ যাননি লন্ডনের ট্যাক্সি ড্রাইভাররাও। “ভেজা”-র ভোজবাজির রহস্য খুঁজতে গিয়ে নিউরোন থেকে হিপোক্যাম্পাস নেড়ে-চেড়ে বিজ্ঞানীরা বের করে চলেছেন একের পর এক সূত্র আর সেই বিষয় নিয়েই লিখলেন মানস প্রতিম দাস।

পড়তে থাকুন... »

‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র চতুর্থ সংখ্যা : নিউটনের সূত্র ও অন্যান্য প্রবন্ধ

‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র চতুর্থ সংখ্যা : নিউটনের সূত্র ও অন্যান্য প্রবন্ধ

‘বিজ্ঞান’-এ প্রকাশিত লেখার বাছাই সংকলন নিয়ে হাজির ‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র চতুর্থ সংখ্যা। এই অনলাইন পি ডি এফ পত্রিকার দু’মলাটের মধ্যে রইল নিউটনের সূত্র নিয়ে বিশদে আলোচনা। নিউটনের সূত্র সংক্রান্ত একটি প্রচলিত পরীক্ষার প্রশ্ন কেন ঠিক নয়, সেই নিয়েও কিছু সমালোচনা রইলো। তার সাথে আছে সৌরশক্তির প্রয়োগ, অটিজম-সংক্রান্ত গবেষণা ও বাদুড়দের সামাজিক জীবন নিয়ে কিছু গল্প। পড়ুন ও বাকিদের পড়ান।

পড়তে থাকুন... »

প্রাণের উৎস

প্রাণের উৎস

আমাদের চারপাশে প্রাণের এত কোলাহল! কোথা থেকে এলো এত প্রাণ? এই কঠিন প্রশ্নের জবাব সভ্যতার আদিকাল থেকে মানুষ খুঁজে চলেছে। বিজ্ঞানের এই জয়জয়কারের যুগে আমরা কতটুকু জানতে পেরেছি, তার বিশ্লেষণ নিয়ে হাজির অর্ণব রুদ্র, “প্রাণের উৎস” ধারাবাহিকে। আজ প্রথম পর্বে রইলো প্রশ্ন — পৃথিবীর জীবন দাতা জলের আবির্ভাব কোথা থেকে এবং কবে হলো?

পড়তে থাকুন... »

জীবাণুদের যত কথা – ৮

জীবাণুদের যত কথা – ৮

ব্যাকটেরিয়াদের আকার ছোট হলে কি হবে, ওরাই আমাদের নাস্তানাবুদ করে ছেড়েছে। আগের পর্বে গ্রাম-পজিটিভ ব্যাকটেরিয়াদের মারার ছক কষেছি। কিন্তু সেই ছকে গ্রাম-নেগেটিভদের মারা যাবে না। তাদের জন্য অন্য প্ল্যান। সেই প্ল্যান নিয়েই আজ আমাদের ওয়ার-রুমে নিয়ে যাবে ব্যাকটেরিয়া বিশারদ দেবনাথ ঘোষাল। ওর পঞ্চ প্ল্যানেই হবে গ্রাম-নেগেটিভ ব্যাকটেরিয়াদের পঞ্চত্বপ্রাপ্তি।

পড়তে থাকুন... »