‘ক’-এ কোয়ান্টাম: দ্বিতীয় পর্ব

‘ক’-এ কোয়ান্টাম: দ্বিতীয় পর্ব

রহস্যময় কোয়ান্টাম জগৎ নিয়ে ধারাবাহিক লিখছে রাজীবুল ইসলাম। আজ দ্বিতীয় পর্বে থাকছে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন নিয়ে আলোচনা: কোনো বস্তু কখন কোয়ান্টাম তত্ত্বের আওতায় আসে? কাদের ক্ষেত্রে কণা আর তরঙ্গ ধর্ম একসাথে বিচরণ করতে পারে বা স্রেফ পর্যবেক্ষণ করেই বস্তুর অবস্থা পাল্টে দেওয়া যায়? একটা মার্বেল কি উড়ুক্কু মৌমাছির ক্ষেত্রে এটা হয়না কেন? আসুন, রহস্যময় কোয়ান্টাম জগৎ আর রোজকার পরিচিত ক্লাসিক্যাল জগতের সীমারেখাটা কোথায়, সেই চুলচেরা বিশ্লেষণে যাওয়া যাক।

পড়তে থাকুন... »

পায়রার বাক্সে স্থান-সঙ্কুলান সমস্যা

পায়রার বাক্সে স্থান-সঙ্কুলান সমস্যা

গণিতের উপপাদ্যের মজা হলো, কখন কোথায় কাজে লেগে যাবে, ঠিক নেই। আপাতদৃষ্টিতে দুটো আলাদা সমস্যা, পায়রার খুপড়ি দখল নিয়ে একটা প্রশ্ন আর নিমন্ত্রণবাড়িতে পরিচিতের সংখ্যা নিয়ে সম্পূর্ণ ভিন্ন আরেকটা প্রশ্ন, দুইয়েরই উত্তর দেওয়া সম্ভব একটা সহজ উপপাদ্যের সাহায্যে। প্রশ্ন দুটি কি এবং কিভাবে একই উপপাদ্যের সাহায্যে তার উত্তর দেওয়া যায়, সেই গল্প বলছে নীলাব্জ চ্যাটার্জী।

পড়তে থাকুন... »

গ্রীন ফ্লুওরেসেন্ট প্রোটিন (পর্ব ১) : কিছু ইতিহাস

গ্রীন ফ্লুওরেসেন্ট প্রোটিন (পর্ব ১) : কিছু ইতিহাস

২০০৮ সালে রসায়ন বিভাগের নোবেল প্রাইজে সম্মানিত হয়েছিলেন ওসামু শিমোমুরা, মার্টিন চ্যালফি এবং রজার চ্যেন। তিন বিজ্ঞানীর গবেষণার যোগসূত্র জেলিফিশ থেকে জৈবিক আলোনির্গতকারী এক বায়োলুমিনেসেন্ট প্রোটিনকে ঘিরে, যার নাম গ্রীন ফ্লুওরেসেন্ট প্রোটিন, সংক্ষেপে জি এফ পি। জীববিদ্যার জগতে আলোড়ন সৃষ্টিকারী জি এ পি-র আবিষ্কার এবং তার ব্যবহার নিয়ে ধারাবাহিক লেখা লিখছে কুণাল চক্রবর্ত্তী। আজ প্রথম পর্বে থাকছে জি এফ পি-র আবিষ্কারের কিছু ইতিহাস।

পড়তে থাকুন... »

‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র ষষ্ঠ সংখ্যাঃ ভিক্টর হেস ও অন্যান্য প্রবন্ধ

‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র ষষ্ঠ সংখ্যাঃ ভিক্টর হেস ও অন্যান্য প্রবন্ধ

‘বিজ্ঞান’-এ প্রকাশিত লেখার বাছাই সংকলন নিয়ে হাজির ‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র ষষ্ঠ সংখ্যা। মহাজাগতিক রশ্মির আবিষ্কর্তা ভিক্টর হেস, ছায়াপথ, নর্দমার দুর্গন্ধের কারণ, মনের গভীরের রহস্য থেকে গাছেদের যুদ্ধ – হরেকরকম লেখা রয়েছে এবারের সংখ্যায়। ই-বুক ফরম্যাটে পড়তে পারেন কিংবা পি ডি এফ থেকে সহজেই প্রিন্ট করে নিতে পারেন।

পড়তে থাকুন... »

লিসা মাইটনার : মানবতাবাদী এক পদার্থবিজ্ঞানী

লিসা মাইটনার : মানবতাবাদী এক পদার্থবিজ্ঞানী

বিংশ শতকের প্রথমার্ধে পদার্থবিদ্যায় যে অসাধারণ অগ্রগতি ঘটেছিলো তার অন্যতম পুরোধা ছিলেন নিউক্লিয়ার বিভাজনের (nuclear fission) আবিষ্কর্তা লিসা মাইটনার। অথচ মহিলা ও ইহুদী হওয়ার কারণে প্রায় সবক্ষেত্রেই তাঁর কপালে জুটেছিল কেবলমাত্র বঞ্চনা। এতো প্রতিকূলতা থাকা সত্ত্বেও কেবলমাত্র জানার ইচ্ছেকে অবলম্বন করে যে অসাধারণ সব কাজ তিনি করে গিয়েছেন, তারই গল্প বলছেন ইম্পেরিয়াল কলেজ অফ লন্ডনের গবেষক সেরজিও পি. পেরেজ। ‘বিজ্ঞান’-এর জন্য বাংলায় অনুবাদ করেছে শ্রীনন্দা ঘোষ।

পড়তে থাকুন... »

বুধের সূর্য-সরণ

বুধের সূর্য-সরণ

সূর্যের বুক চিরে কালো তিলের মত একটা কিছু সরে যাচ্ছে। ঘন্টাখানেক ধরে দেখা গেল এই দৃশ্য। আসলে এটা অন্য ধরণের সূর্যগ্রহণ, যেখানে চাঁদ নয় বরং বুধ গ্রহ এসে পড়েছে পৃথিবী ও সূর্যের ঠিক মাঝে। সূর্যের উপর দিয়ে চাঁদের সরণ ও বুধের সরণের মধ্যে পার্থক্য ঠিক কোথায়? বুধের সূর্য-সরণ নিয়ে লিখছে সুমন পাল।

পড়তে থাকুন... »

প্রাচীন ভারতীয় গণিতবিদ্যা

প্রাচীন ভারতীয় গণিতবিদ্যা

পৃথিবীর গণিতবিদ্যার ঐতিহ্যে প্রাচীন ভারতের অবদান যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। ‘০’ এর ব্যবহার থেকে ‘পাই’ এর মান নির্ণয়, বিগত ৩০০০ বছরের বেশী সময় ধরে ধারাবাহিকভাবে ভারতবর্ষে গণিতবিদ্যার যে অগ্রগতি ঘটেছে, তা নিয়েই আলোচনা করেছেন প্রফেসর শ্রীকৃষ্ণ গোপালরাও দানি।

পড়তে থাকুন... »

স্বার্থপর মা

স্বার্থপর মা

সন্তান তার পিতামাতার কাছে প্রাণাধিক প্রিয়। তবু প্রকৃতির নিয়মই কখনও কখনও বাধ্য করে পিতামাতাকে সন্তানের প্রতিযোগী হয়ে উঠতে। বিবর্তনের দৃষ্টিতে পিতামাতা ও সন্তানের এই সংঘাত অবাঞ্ছিত তো নয়-ই বরং অত্যন্ত জরুরী। একদল কুকুর ও তাদের সদ্যজাত সন্তানসন্ততির ওপর হাতেকলমে পরীক্ষার মাধ্যমে এর উত্তর খোঁজার চেষ্টায় বিজ্ঞানীরা। বিবর্তনবাদ ও রাশিবিজ্ঞানের মেলবন্ধনে এই চমকপ্রদ তত্ত্বের ব্যখ্যা ও পরীক্ষালব্ধ প্রমাণের কথা বিজ্ঞানের পাঠকদের বলছেন সেই বিজ্ঞানীদলের প্রধান অনিন্দিতা ভদ্র।

পড়তে থাকুন... »