বিজ্ঞান পত্রিকা-র সপ্তম সংখ্যা: প্রাণীজগতে স্বার্থপরতা ও অন্যান্য প্রবন্ধ

বিজ্ঞান পত্রিকা-র সপ্তম সংখ্যা: প্রাণীজগতে স্বার্থপরতা ও অন্যান্য প্রবন্ধ

বিজ্ঞান’-এ প্রকাশিত লেখার বাছাই সংকলন নিয়ে হাজির ‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র সপ্তম সংখ্যা। এবারের বিষয় প্রাণীজগতে সহযোগিতা ও প্রতিযোগিতার দ্বন্দ্ব। শ্রমিক মৌমাছিদের আপাত নিঃস্বার্থ চরিত্র থেকে শুরু করে কুকুরের আপাত স্বার্থপরতা, বিজ্ঞান কিভাবে ব্যাখ্যা করে এগুলোকে ? জানতে হলে এবারের পত্রিকা পড়ুন। ই-বুক ফরম্যাটে পড়তে পারেন কিংবা পি ডি এফ থেকে সহজেই প্রিন্ট করে নিতে পারেন।

পড়তে থাকুন... »

পাঠকের দরবার ৫ – চোট লাগলে ফুলে যায় কেন ?

পাঠকের দরবার ৫ –  চোট লাগলে ফুলে যায় কেন ?

মাঠে খেলতে গিয়ে গোড়ালিটা গেল মচকে – আর কিছুক্ষণের মধ্যেই ফুলে উঠল! শরীরের কোন জায়গায় আঘাত লেগে ফুলে যাওয়াটা আমাদের কাছে খুব স্বাভাবিক মনে হয়। কিন্তু, ভেবে দেখেছ কি, এই ফুলে ওঠার কারণ কী? বিশ্বজিত গিরির করা এই প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন ডাক্তার লার্স গ্রান্ট।

পড়তে থাকুন... »

‘ক’-এ কোয়ান্টাম: দ্বিতীয় পর্ব

‘ক’-এ কোয়ান্টাম: দ্বিতীয় পর্ব

রহস্যময় কোয়ান্টাম জগৎ নিয়ে ধারাবাহিক লিখছে রাজীবুল ইসলাম। আজ দ্বিতীয় পর্বে থাকছে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন নিয়ে আলোচনা: কোনো বস্তু কখন কোয়ান্টাম তত্ত্বের আওতায় আসে? কাদের ক্ষেত্রে কণা আর তরঙ্গ ধর্ম একসাথে বিচরণ করতে পারে বা স্রেফ পর্যবেক্ষণ করেই বস্তুর অবস্থা পাল্টে দেওয়া যায়? একটা মার্বেল কি উড়ুক্কু মৌমাছির ক্ষেত্রে এটা হয়না কেন? আসুন, রহস্যময় কোয়ান্টাম জগৎ আর রোজকার পরিচিত ক্লাসিক্যাল জগতের সীমারেখাটা কোথায়, সেই চুলচেরা বিশ্লেষণে যাওয়া যাক।

পড়তে থাকুন... »

পায়রার বাক্সে স্থান-সঙ্কুলান সমস্যা

পায়রার বাক্সে স্থান-সঙ্কুলান সমস্যা

গণিতের উপপাদ্যের মজা হলো, কখন কোথায় কাজে লেগে যাবে, ঠিক নেই। আপাতদৃষ্টিতে দুটো আলাদা সমস্যা, পায়রার খুপড়ি দখল নিয়ে একটা প্রশ্ন আর নিমন্ত্রণবাড়িতে পরিচিতের সংখ্যা নিয়ে সম্পূর্ণ ভিন্ন আরেকটা প্রশ্ন, দুইয়েরই উত্তর দেওয়া সম্ভব একটা সহজ উপপাদ্যের সাহায্যে। প্রশ্ন দুটি কি এবং কিভাবে একই উপপাদ্যের সাহায্যে তার উত্তর দেওয়া যায়, সেই গল্প বলছে নীলাব্জ চ্যাটার্জী।

পড়তে থাকুন... »

গ্রীন ফ্লুওরেসেন্ট প্রোটিন (পর্ব ১) : কিছু ইতিহাস

গ্রীন ফ্লুওরেসেন্ট প্রোটিন (পর্ব ১) : কিছু ইতিহাস

২০০৮ সালে রসায়ন বিভাগের নোবেল প্রাইজে সম্মানিত হয়েছিলেন ওসামু শিমোমুরা, মার্টিন চ্যালফি এবং রজার চ্যেন। তিন বিজ্ঞানীর গবেষণার যোগসূত্র জেলিফিশ থেকে জৈবিক আলোনির্গতকারী এক বায়োলুমিনেসেন্ট প্রোটিনকে ঘিরে, যার নাম গ্রীন ফ্লুওরেসেন্ট প্রোটিন, সংক্ষেপে জি এফ পি। জীববিদ্যার জগতে আলোড়ন সৃষ্টিকারী জি এ পি-র আবিষ্কার এবং তার ব্যবহার নিয়ে ধারাবাহিক লেখা লিখছে কুণাল চক্রবর্ত্তী। আজ প্রথম পর্বে থাকছে জি এফ পি-র আবিষ্কারের কিছু ইতিহাস।

পড়তে থাকুন... »

‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র ষষ্ঠ সংখ্যাঃ ভিক্টর হেস ও অন্যান্য প্রবন্ধ

‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র ষষ্ঠ সংখ্যাঃ ভিক্টর হেস ও অন্যান্য প্রবন্ধ

‘বিজ্ঞান’-এ প্রকাশিত লেখার বাছাই সংকলন নিয়ে হাজির ‘বিজ্ঞান পত্রিকা’-র ষষ্ঠ সংখ্যা। মহাজাগতিক রশ্মির আবিষ্কর্তা ভিক্টর হেস, ছায়াপথ, নর্দমার দুর্গন্ধের কারণ, মনের গভীরের রহস্য থেকে গাছেদের যুদ্ধ – হরেকরকম লেখা রয়েছে এবারের সংখ্যায়। ই-বুক ফরম্যাটে পড়তে পারেন কিংবা পি ডি এফ থেকে সহজেই প্রিন্ট করে নিতে পারেন।

পড়তে থাকুন... »

লিসা মাইটনার : মানবতাবাদী এক পদার্থবিজ্ঞানী

লিসা মাইটনার : মানবতাবাদী এক পদার্থবিজ্ঞানী

বিংশ শতকের প্রথমার্ধে পদার্থবিদ্যায় যে অসাধারণ অগ্রগতি ঘটেছিলো তার অন্যতম পুরোধা ছিলেন নিউক্লিয়ার বিভাজনের (nuclear fission) আবিষ্কর্তা লিসা মাইটনার। অথচ মহিলা ও ইহুদী হওয়ার কারণে প্রায় সবক্ষেত্রেই তাঁর কপালে জুটেছিল কেবলমাত্র বঞ্চনা। এতো প্রতিকূলতা থাকা সত্ত্বেও কেবলমাত্র জানার ইচ্ছেকে অবলম্বন করে যে অসাধারণ সব কাজ তিনি করে গিয়েছেন, তারই গল্প বলছেন ইম্পেরিয়াল কলেজ অফ লন্ডনের গবেষক সেরজিও পি. পেরেজ। ‘বিজ্ঞান’-এর জন্য বাংলায় অনুবাদ করেছে শ্রীনন্দা ঘোষ।

পড়তে থাকুন... »

বুধের সূর্য-সরণ

বুধের সূর্য-সরণ

সূর্যের বুক চিরে কালো তিলের মত একটা কিছু সরে যাচ্ছে। ঘন্টাখানেক ধরে দেখা গেল এই দৃশ্য। আসলে এটা অন্য ধরণের সূর্যগ্রহণ, যেখানে চাঁদ নয় বরং বুধ গ্রহ এসে পড়েছে পৃথিবী ও সূর্যের ঠিক মাঝে। সূর্যের উপর দিয়ে চাঁদের সরণ ও বুধের সরণের মধ্যে পার্থক্য ঠিক কোথায়? বুধের সূর্য-সরণ নিয়ে লিখছে সুমন পাল।

পড়তে থাকুন... »